ঢাকাশনিবার , ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২২
  1. Covid-19
  2. অপরাধ ও আদালত
  3. অর্থনীতি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. ইসলাম ডেস্ক
  6. কৃষি ও অর্থনীতি
  7. খেলাধুলা
  8. জাতীয়
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. দেশজুড়ে
  11. নির্বাচন
  12. বানিজ্য
  13. বিনোদন
  14. ভিডিও গ্যালারী
  15. মুক্ত মতামত ও বিবিধ কথা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ক্যাম্পাসে ক্যাম্পাসে বড় ভাইদের শাসন!

প্রতিবেদক
প্রতিদিনের বাংলাদেশ
ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২২ ১২:০৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম। খুলনা থেকে রাজশাহী। বরিশাল থেকে সিলেট। সর্বত্রই একই চিত্র। ক্ষমতা যার বিশ্ববিদ্যালয়ের হলের দখল তাদের। ক্ষমতা বদলায় জমিদারি তালুকের মতো হলের রাজত্বও বদলায়। বছরের পর বছর ধরেই এমন ব্যবস্থা দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে। হলে কে থাকবে কে থাকবে না এটিও অনেক ক্ষেত্রে ঠিক করে দিচ্ছে ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠন।

শুধু কি তাই! বড় ভাই পরিচয়ে তারা নিয়ন্ত্রণ করছে সব কিছু। নিয়োগ, টেন্ডার থেকে নিয়ে প্রায় সব ক্ষেত্রে তাদের একচ্ছত্র আধিপত্য। তাদের কথা না শুনলে নানা হয়রানি আর নির্যাতনের শিকার হতে হয় শিক্ষার্থীদের। সালাম না দিলে, কথামতো কাজ না করলে হল থেকে বের করে দেয়ার ঘটনাও ঘটছে।

ঢাবির হল নিয়ন্ত্রণ করেন বড় ভাইয়েরা: বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলো মূলত দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা শিক্ষার্থীদের নিরাপদ বাসস্থান নিশ্চিত করার লক্ষ্যেই তৈরি করা হয়। কিন্তু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) কর্তৃপক্ষের নিযুক্ত প্রাধ্যক্ষ মেধার ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের মাঝে সিট বণ্টনের নিয়ম। যেখানে থেকে একজন শিক্ষার্থী পড়াশোনা শিখে নিজেকে ভবিষ্যতের জন্য যোগ্য করবেন এবং বিশ্ববিদ্যালয় জীবন শেষে সিট ছেড়ে দেবেন নতুনদের জন্য। হলের এসব লিপিবদ্ধ নিয়ম-কানুন অনেকটা রূপকথার গল্পের মতো শোনায় সমসাময়িক বাস্তবতায়। ঢাবি নিজের জৌলুস হারিয়েছে অনেক আগেই। সঙ্গে হারিয়েছে হলগুলোর ওপর প্রশাসনিক নিয়ন্ত্রণ। মুষ্টিমেয় কিছু প্রশাসনিক কার্যক্রম পরিচালনা করা ছাড়া হলগুলোতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের খুব একটা ক্ষমতা নেই। হলগুলো এখন নিয়ন্ত্রণ ও পরিচালনা করে ছাত্রসংগঠনের কথিত বড় ভাইয়েরা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪৩ হাজার শিক্ষার্থীর জন্য হল রয়েছে মাত্র ১৯টি। এর মধ্যে পাঁচটি ছাত্রীদের জন্য, ১৩টি ছাত্রদের জন্য আর একটি হল বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য। বিদেশি শিক্ষার্থীদের হল আর মেয়েদের হলে প্রশাসনের এখনো বেশ খানিকটা নিয়ন্ত্রণ থাকলেও ছেলেদের হলে রাজনৈতিক বড় ভাইয়েরাই সর্বেসর্বা। প্রশাসন সেখানে অনেকটা ঠুঁটো জগন্নাথ। হলগুলোর মধ্যে অপেক্ষাকৃত নতুন বিজয় একাত্তর হল এতদিন প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণে ছিল। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে কৃত্রিম গণরুম তৈরি, প্রশাসনিক বরাদ্দ পাওয়া শিক্ষার্থীদের সিটে উঠতে না দেয়াসহ নানা উপায়ে এই হলও নিজেদের করায়ত্ত করে নিয়েছে ছাত্রলীগ।

আপনার মন্তব্য লিখুন