ঢাকামঙ্গলবার , ১৮ জানুয়ারি ২০২২
  1. Covid-19
  2. অপরাধ ও আদালত
  3. অর্থনীতি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. ইসলাম ডেস্ক
  6. কৃষি ও অর্থনীতি
  7. খেলাধুলা
  8. জাতীয়
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. দেশজুড়ে
  11. নির্বাচন
  12. বানিজ্য
  13. বিনোদন
  14. ভিডিও গ্যালারী
  15. মুক্ত মতামত ও বিবিধ কথা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নৌকা প্রার্থীর পোস্টারে বঙ্গবন্ধু বানান ভুল!

প্রতিবেদক
প্রতিদিনের বাংলাদেশ
জানুয়ারি ১৮, ২০২২ ৭:৩৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার চন্দননগর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন খালেকুজ্জামান তোতা। তবে নির্বাচনী প্রচারণার পোস্টারে বঙ্গবন্ধুর নামের বানান ভুল করে সমালোচনার জন্ম দিয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত এই প্রার্থী। ওই ভুল বানানের পোস্টার পুরো ইউনিয়নে ছড়িয়ে দেওয়ার পর স্থানীয়দের মাঝে সমালোচনা চলছে।

খালেকুজ্জামান তোতার ওই পোস্টারে ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ স্লোগান লেখার কথা থাকলেও ওই স্লোগানে বঙ্গবন্ধুর পরিবর্তে ‘বঙ্গন্ধু’ লেখা হয়েছে। ওই ভুল বানানের পোস্টারটি ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়েও বঙ্গবন্ধু নামের বানান ভুল করায় পুরো এলাকায় সমালোচনার মুখে পড়েছেন ওই চেয়ারম্যান প্রার্থী।

মঙ্গলবারও ( ১৮ জানুয়ারি) ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে ভুল বানানের ওই পোস্টার টানানো অবস্থায় দেখা গেছে।

এ বিষয়ে নৌকার প্রার্থী খালেকুজ্জামান তোতার সাথে বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোনকল রিসিভ করেননি।

বিষয়টি নিয়ে নিয়ামতপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ বলেন, চন্দননগর ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী খালেকুজ্জামান তোতার পোস্টারে বঙ্গবন্ধু নামের বানানে ভুল করা হয়েছে এ বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে এটা যদি সত্যিই হয়ে থাকে তাহলে খুবই দুঃখজনক। এমন ভুল করা উচিত নয়। পোস্টারগুলো ছাপানোর আগে ও পরে ভালো করে বানানগুলো চেক করা উচিত ছিল। আমি ওই চেয়ারম্যান প্রার্থীকে অবশ্যই বলবো যাতে এসব ভুল বানানের পোস্টারগুলো দ্রুত তিনি সরিয়ে নেন। এমন ভুল যেন আর কেউ না করে সে বিষয়ে সবারই সর্তক থাকা উচিত।

খালেকুজ্জামান তোতা উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য। গত নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছিলেন। কিন্তু ওই নির্বাচনে বর্তমান চেয়ারম্যান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক বদিউজ্জামানের কাছে হেরে যান। এবারও তিনি চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়ছেন। ষষ্ঠ ধাপের ইউপি নির্বাচনে আগামী ৩১ জানুয়ারি নিয়ামতপুর উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে শতভাগ ইভিএমে ভোট অনুষ্ঠিত হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন