ঢাকামঙ্গলবার , ১০ আগস্ট ২০২১
  1. Covid-19
  2. অপরাধ ও আদালত
  3. অর্থনীতি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. ইসলাম ডেস্ক
  6. কৃষি ও অর্থনীতি
  7. খেলাধুলা
  8. জাতীয়
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. দেশজুড়ে
  11. নির্বাচন
  12. বানিজ্য
  13. বিনোদন
  14. ভিডিও গ্যালারী
  15. মুক্ত মতামত ও বিবিধ কথা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পঞ্চগড়ে আশা ছিল গরু বিক্রি করে সমৃদ্ধি আনবেন সংসারে কিন্তু আগুনে কেড়ে নিলো সে স্বপ্ন

প্রতিবেদক
প্রতিদিনের বাংলাদেশ
আগস্ট ১০, ২০২১ ১:৫৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মনজু হোসেন, (স্টাফ রিপোর্টার)

পঞ্চগড় সদর উপজেলার ৬নং সাতমেরা ইউনিয়নের ডাঙ্গা পাড়া গ্রামে আব্দুল জলিল আগুনে কেড়ে নিলো সে স্বপ্ন বিভিন্ন সমিতি থেকে লোন নিয়ে কিনেছিলেন গরু। আশা ছিল গরু বিক্রি করে সমৃদ্ধি আনবেন সংসারে। কিন্তু আগুনে কেড়ে নিলো সে স্বপ্ন। মধ্যরাতে গরু পুড়তে দেখে বাঁচাতে ঝাঁপ দেন আগুনে। এতে শরীর ঝলসে গেলেও শেষ অবধি রক্ষা হলো না। আগুনে পুড়ে গেলো গরু। গরীব কৃষকের ৭ লাখ টাকার ক্ষতি হলো।

মঙ্গলবার ভোর রাতে (১০/০৮/২০২১) পঞ্চগড় সদর উপজেলার ৬নং সাতমেরা ইউনিয়নের ডাঙ্গা পাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটেছে।
ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক জলিল জানান, তিনি বিভিন্ন সমিতি থেকে লোন নিয়ে ৫ গরু কিনেছিলেন। তার ৩ ছেলেও ৬টি ছাগল কিনে লাভের আশায় লালন-পালন করছিলেন। গরু ৫ টি পাশাপাশি গোয়াল ঘরে রাখা ছিল। ভোররাতে হঠাৎ বিকট শব্দে ঘুম ভাঙে তাদের। এসময় তিনি তার গোয়াল ঘরে আগুন দেখতে পান। গরু বাঁচাতে আগুনকে তোয়াক্কা না করে প্রবেশ করেন গরু রাখার ঘরে। তার চিৎকারে পরিবারের অন্য সদস্য ছাড়াও স্থানীয়রা এসে আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে না আসলে ৫টি গরু মধ্যে দুই টি গরু মারা যায়। তারও মুখ-হাত ঝলসে যায়।

আগুনে ৬ টি ঘর পুড়ে ছাই হয়েছে। এ ঘটনায় ৪ টি পরিবার ঘরে থাকা সব কিছুই পুড়ে গেছে। মঙ্গলবার ভোর রাতে এলাকার ডাঙ্গা পাড়া গ্রামে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। পরে এলাকাবাসীরা আড়াই ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় ফায়ার সার্ভিসের সদস্যদের রাস্তা ভাল না থাকায় গাড়ি নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌছাতে বিলম্ব হয়। আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে কিন্তু এর আগেই বাড়ির ঘরগুলো পুড়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ফায়ার সার্ভিসের ২টি ইউনিট।

ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা নিরঞ্জন সরকার বলেন জানান, তাৎক্ষনিক ভাবে আগুন লাগার কারণ ও ক্ষতির পরিমাণ তদন্ত সাপেক্ষে নিরূপণ করা যাবে। তবে স্থানীয়রা ধারনা করছে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটতে পারে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো.আতাউর রহমান জানান, ভয়াবহ এ আগুনে পুড়ে ৬ টি ঘরসহ, মরিচ,গম, ধান ও নগদ প্রায় ২ লাখ টাকা পুড়ে যায় এবং ৫টি গরু মধ্যে দুই টি গরু মারা যায়।। এ অগ্নিকান্ডে আনুমানিক প্রায় ৭ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে।

ক্ষতিগ্রস্থ জলিল ও তার তিন ছেলে বলেন, আমাদের পরিবার গুলোর সদস্যেদের পড়নের কাপড় ছাড়া সব কিছুই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।এখন স্বপ্নও শেষ, আবার ঋণও টানতে হবে। কীভাবে এই পরিস্থিতি থেকে বাঁচবেন তা বুঝতে পারছেন না উপজেলা নিবার্হী অফিসার মোঃ আরিফ হোসেন মুঠো জানান, অগ্নিকান্ডের খবর পেয়েছি। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নগদ টাকা, ডেউটিন, কম্বল ও শুকনো খাবার দিয়েছি এবং উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকলকে সার্বিক সহযোগীতা করা হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন