ঢাকাশুক্রবার , ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২
  1. Covid-19
  2. অপরাধ ও আদালত
  3. অর্থনীতি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. ইসলাম ডেস্ক
  6. কৃষি ও অর্থনীতি
  7. খেলাধুলা
  8. জাতীয়
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. দেশজুড়ে
  11. নির্বাচন
  12. বানিজ্য
  13. বিনোদন
  14. ভিডিও গ্যালারী
  15. মুক্ত মতামত ও বিবিধ কথা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

রংপুরে বিয়ের দাবিতে সেনা সদস্যের বাড়ি প্রেমিকার অবস্থান, আত্মহত্যার হুমকি!

প্রতিবেদক
প্রতিদিনের বাংলাদেশ
ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২২ ২:০৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

স্টাফ রিপোর্টারঃ রংপুরের মিঠাপুকুরে রহমত আলী নামের এক সদস্যের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অবস্থান নিয়েছে এক তরুণী। অন্যদিকে ওই সেনা সদস্যের পারিবারিকভাবে ঠিক হওয়া বিয়ের জন্য অপর এক তরুণীর গায়ে হলুদও সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে দশটায় পেশায় দন্তচিকিৎসক ওই তরুণী সেনা সদস্যের বাড়িতে গিয়ে অবস্থান নেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে সৈনিক পদে কর্মরত উপজেলার লতিবপুর ইউনিয়নের ইটখোলা গ্রামের মুনসুর আলীর পুত্র রহমত আলীর বিয়ের সবকিছু ঠিক। রহমত আলীর গায়ে হলুদসহ সকল আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়েছে।

এই খবর পেয়ে রাত সাড়ে দশটায় তার বাড়িতে হাজির হন এক তরুণী। পেশায় দন্তচিকিৎসক ওই তরুণী দাবি করে বলেন, আমার সাথে প্রেমের সম্পর্কের সূত্র ধরে গত বছর আমার বাড়িতে বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে যায় ছেলেপক্ষের বাবাসহ কয়েকজন স্বজন। আমাকে দেখার পর তাদের পছন্দ না হওয়ায় বিয়ের আলোচনা ভেঙ্গে যায়। কিন্তু তখন রহমত আলী বলেন, আস্তে আস্তে আমার পরিবারকে বিষয়টি বুঝিয়ে আমি বিয়েতে রাজি করাবো। এর পর আমার সাথে তার সম্পর্ক চলতে থাকে। বিভিন্ন জায়গায় দেখা সাক্ষাৎ করি আমরা।

তরুণী আরও দাবি করেন, আমি জানতে পারি আমার প্রেমিক রহমত আলী বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) অন্য একটি মেয়েকে বিয়ে করছেন। সেজন্য সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। আমি জানতে পেরে তার বাড়িতে এসে অবস্থান নিয়েছি। সেনা সদস্য রহমত আমাকে বিয়ে না করলে আমি এখানেই আত্মহত্যা করব। আমি পেশায় দন্ত চিকিৎসক। একই স্কুলে পড়ার সুযোগে স্কুল জীবন থেকেই আমাদের পরিচয় তারপর সম্পর্ক। সেনাবাহিনীতে চাকরিরত রহমানের সাথে আমার সম্পর্ক স্কুলবেলার। আমাকে ছাড়া সে অন্য কাউকে বিয়ে করতে পারে না।

পুলিশ জানিয়েছে মেয়েটি অবস্থান নেয়ার পরপরই সেনা সদস্য রহমত আলী বাড়ি ছেড়ে চলে গেছে।

রহমত আলীর পিতা মুনসুর আলী জানান, ছেলের সাথে সম্পর্কের সূত্র ধরে গত বছর আমি মেয়েটিকে দেখতে গিয়েছিলাম। মেয়ে দেখে আমাদের পছন্দ হয়নি। পরে ছেলের সাথে আলোচনা করে অন্য জায়গায় বিয়ে ঠিক করি। বৃহস্পতিবার রাতেই এই জায়গায় বিয়ে হওয়ার কথা। এজন্য সকল ধরনের প্রস্তুতি আমার সম্পন্ন। ওই মেয়ের গায়ে হলুদ হয়ে গেছে। আত্মীয়-স্বজন পাড়া-প্রতিবেশী সবাইকে দাওয়াত করা হয়েছে উভয় পক্ষের থেকে। এখন এই মেয়ে এসে বাড়িতে হাজির। আমি এখন কি করবো বুঝে উঠতে পারছি না।

মিঠাপুকুর থানার ওসি জাকির হোসেন (তদন্ত) জানান, ঘটনাস্থলে বিট অফিসার আব্দুল জব্বার আছেন। এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ পেলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। ওই সেনা সদস্যের বাড়িতে অবস্থান করি তরুণীটির যাতে কোনো ক্ষতি কেউ করতে না পারে সে জন্য পুলিশের নজরদারি রাখা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন