ঢাকামঙ্গলবার , ৭ ডিসেম্বর ২০২১
  1. Covid-19
  2. অপরাধ ও আদালত
  3. অর্থনীতি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. ইসলাম ডেস্ক
  6. কৃষি ও অর্থনীতি
  7. খেলাধুলা
  8. জাতীয়
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. দেশজুড়ে
  11. নির্বাচন
  12. বানিজ্য
  13. বিনোদন
  14. ভিডিও গ্যালারী
  15. মুক্ত মতামত ও বিবিধ কথা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

লালমনিরহাটের ব্র্যাক এনজিও কর্মীকে অনৈতিক প্রস্তাব; রাজি না হওয়ায় চাকুরিচ্যুত!

প্রতিবেদক
প্রতিদিনের বাংলাদেশ
ডিসেম্বর ৭, ২০২১ ৭:১৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আশরাফুল হক, লালমনিরহাটঃ লালমনিরহাট জেলার মহেন্দ্রনগর ইউনিয়নের ব্র্যাক এইচএনপিপি (স্বাস্থ্য) প্রোগ্রামে কর্মরত মহিলা কর্মীকে অনৈতিক প্রস্তাব, রাজি না হওয়ায় চাকরী থেকে অব্যাহতি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ব্র্যাকের সদর উপজেলা ম্যানেজার আব্দুস সালাম ও জেলা ম্যানেজার আশরাফুল ইসলামের বিরুদ্ধে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, লালমনিরহাট সদর উপজেলায় ১টি পৌরসভা ও ৯টি ইউনিয়নে ১৬ জন মহিলা স্বাস্থ্য কর্মী ব্র্যাকের এইচএনপিপি (স্বাস্থ্য) প্রোগ্রামে দীর্ঘ দিন ধরে কর্মরত ছিল। সম্প্রতি ব্র্যাকের ঢাকা হেড অফিস প্রতিটি ইউনিয়নে ১জন করে স্বাস্থ্য কর্মী রাখার সিদ্ধান্ত নেয়। তারই অংশ হিসেবে লালমনিরহাট সদর উপজেলার জন্য পৌরসভায় ১জন ও ৯টি উপজেলায় ৯জন এইচএনপিপি (স্বাস্থ্য) প্রোগ্রামে কর্মরত ১৬ জনের মধ্য অনলাইনে পরিক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

লালমনিরহাট জেলা ম্যানেজার আশরাফুল ইসলাম ও সদর উপজেলা ব্র্যাকের ম্যানেজার আব্দুস সালামের কাছে ১৬ জনের কর্মদক্ষতা ও হাজিরার উপর কিছু নম্বর থাকার কারনে সেই নম্বরকে পুঁজি করে ব্র্যাকের জেলা ম্যানেজার আশরাফুল ইসলাম মহেন্দ্রনগর ইউনিয়নের এক স্বাস্থ্য কর্মী ঋতু (ছদ্মনাম) এর কাছে বলে, আমার সাথে একান্তে সময় কাটাতে হবে নতুবা ৫০ হাজার টাকা দিতে হইবে তাইলে তোমার চাকরি থাকবে। ঋতু(ছদ্মনাম) প্রস্তাবে রাজি না হলে তার স্থলে ৫০ হাজার টাকার বিনিময়ে প্রমিলা রায়কে নিয়োগ দেয়।

অভিযোগ সূত্রে আরো জানা যায়, উপজেলার পঞ্চগ্রাম ইউনিয়নে ব্র্যাকের লালমনিরহাট সদর উপজেলা ম্যানেজার আব্দুস ছালাম গত ৩ নভেম্বর কুড়িগ্রাম ও লালমনিরহাট সিমানা সংলগ্ন রাজারহাট থানা সেলিম নগর বাজার সংলগ্ন স্থানে এক স্বাস্থ্য কর্মীর সাথে অনৈতিক কাজ করার সময় এলাকা বাসীর কাছে আটক হন। পরে ২০ হাজার টাকা জরিমান দিয়ে রক্ষা পান। কুড়িগ্রাম জেলার বাসিন্দা হয়েও লালমনিরহাট জেলার পঞ্চগ্রাম ইউনিয়নে সেই মহিলাকে চাকুরি দিতেও তিনি বাধ্য হন। এ বিষয়ে পঞ্চগ্রাম ইউনিয়নের ব্র্যাকের এইচএনপিপি (স্বাস্থ্য) কর্মী মাসুদা বেগম মুন্নি বলেন, সালাম স্যারের সাথে আমার ভাল সম্পর্ক। তিনি কিছু দিনের মধ্যে আমার আত্মীয় হবেন। আমার বাসায় এসেছিলেন। একটু ভুল বুঝাবুঝি হয়েছিল। কোন জরিমানার বিষয় নেই।

ব্র্যাকের জেলা ম্যানেজার আশরাফুল ইসলাম অভিযোগের বিষয়ে বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সত্য নয়।
লালমনিরহাট সদর উপজেলা ম্যানেজার আব্দুস সালামের সেল ফোনে কল করলে রিসিভ করার সাথে সাথেই সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে ফোন কেটে দেন। অভিযোগ বিষয়ে ব্র্যাকের সিনিয়র মিডিয়া ম্যানেজার মাহবুবুল আলম কবির সাংবাদিকদের কাছে লিখিত স্টেটমেন্ট পাঠান। কিন্তু সেই স্টেটমেন্টে নারী ঘটিত ঘটনার কোন ব্যাখ্যা নেই।
আশরাফুল হক/আরইসআর

আপনার মন্তব্য লিখুন