ঢাকামঙ্গলবার , ২ মে ২০২৩
  1. Covid-19
  2. অপরাধ ও আদালত
  3. অর্থনীতি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. ইসলাম ডেস্ক
  6. কৃষি ও অর্থনীতি
  7. খেলাধুলা
  8. জাতীয়
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. দেশজুড়ে
  11. নির্বাচন
  12. বানিজ্য
  13. বিনোদন
  14. ভিডিও গ্যালারী
  15. মুক্ত মতামত ও বিবিধ কথা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

লালমনিরহাটে মসজিদের জমির ধান চুরি করে কাটার অভিযোগ

প্রতিবেদক
প্রতিদিনের বাংলাদেশ
মে ২, ২০২৩ ৯:০৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

খাজা রাশেদ, লালমনিরহাটঃ লালমনিরহাট সদর উপজেলার মহেন্দ্রনগর ইউনিয়নে মসজিদের জমির ধান চুরি করে কাটার অভিযোগ উঠেছে চ্যাং সৈয়দ (৬৬) নামের এক ভূমিদস্যুর বিরুদ্ধে।

গত শনিবার (২৯ এপ্রিল) রাতে চ্যাং সৈয়দ গং মসজিদের জমির ধান চুরি করে কেটে অজ্ঞাতনামা এক আত্নীয়ের বাড়ীতে নিয়ে যায়। যাহার আনুমানিক মূল্য প্রায় ১২ হাজার টাকা।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, লালমনিরহাট সদর উপজেলার মহেন্দ্রনগর ইউনিয়নের ইন্দ্রারপার বাজার সংলগ্ন ভোলার চওড়া নতুন জামে মসজিদের ১২ শতাংশ জমি দীর্ঘ দিন থেকে চাষাবাদ করে আসছে মসজিদ কতৃপক্ষ। এরই মধ্যে চলতি বোরো মৌসুমে অভিযুক্ত চ্যাং সৈয়দ মসজিদ কতৃপক্ষের নিকট মৌখিকভাবে উক্ত জমিটি বর্গা নিয়ে চাষাবাদ শুরু করে। বোরো মৌসুমের ধান পেকে গেলে মসজিদকে ঠকাইবার উদ্দেশ্যে অভিযুক্ত চ্যাং সৈয়দ গং রাতের আধারে জমির ধান কেটে নিয়ে যায়।

মসজিদ কমিটির লোকজন বিষয়টি জানার পর অভিযুক্ত চ্যাং সৈয়দের বাড়ি গিয়ে উৎপাদিত ধানের ভাগ চাইলে চ্যাং সৈয়দের বউ রহিমা বেগম (৬৩), বড় ছেলে সাইদুল ইসলাম (৩৮), ছোট ছেলে রফিকুল ইসলাম (৩৫), ও বড় ছেলের বউ রিনা বেগম (৩২)। মসজিদে প্রসাব/পায়খানা করে দিবে, মসজিদের মুসল্লিদেরকে ঝাড়ু পেঠা করে মুসল্লিদের উচিত শিক্ষা দিবে ও বিভিন্ন গালিগালাজ করে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানে এবং মুসল্লিদের বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদান করে।

মসজিদের সভাপতি আলহাজ্ব আফজাল হোসেন সরকার বলেন, চুরি করে ধান কাটার বিষয়টি জানার পর আমরা অভিযুক্ত চ্যাং সৈয়দের বাড়িতে গিয়ে ধানের ভাগ চাইলে তার বউ, ছেলে, ও ছেলের বউ, বিভিন্ন প্রকার গালিগালাজ ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। আমরা এ ঘটনা সুষ্ঠ সমাধান চাই।

এ বিষয়ে ভোলার চওড়া নতুন জামে মসজিদের মুসল্লী ও ৭নং ওয়ার্ডের মেম্বার শাহাবুল হক বলেন, মসজিদের ধান চুরি করে কাটার বিষয়টি আমি শুনেছি। ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। অভিযুক্ত চ্যাং সৈয়দ এলাকায় মামলাবাজ ও ভূমিদস্যু নামে পরিচিত। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

অভিযুক্ত চ্যাং সৈয়দের সাথে মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয় এই প্রতিবেদক।

লালমনিরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি এরশাদুল আলম বলেন, এমন একটি অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন