ঢাকাবুধবার , ২৯ মার্চ ২০২৩
  1. Covid-19
  2. অপরাধ ও আদালত
  3. অর্থনীতি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. ইসলাম ডেস্ক
  6. কৃষি ও অর্থনীতি
  7. খেলাধুলা
  8. জাতীয়
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. দেশজুড়ে
  11. নির্বাচন
  12. বানিজ্য
  13. বিনোদন
  14. ভিডিও গ্যালারী
  15. মুক্ত মতামত ও বিবিধ কথা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

লালমনিরহাট জেলা ঈদ স্পেশাল ট্রেন থেকে বঞ্চিত, দায় কার?

প্রতিবেদক
প্রতিদিনের বাংলাদেশ
মার্চ ২৯, ২০২৩ ১:১৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আশরাফুল হক, লালমনিরহাট।। আসছে আগামী ঈদে ঘরমুখো মানুষের চাপের কথা বিবেচনা করে ঈদ স্পেশাল ট্রেনের ব্যবস্থা করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে কতৃপক্ষ। ঈদে নয় জোড়া বিশেষ ট্রেন চললেও তা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে লালমনিরহাট রেলওয়ে বিভাগের কয়েকটি জেলার মানুষজন।
Add 99998
লালমনি সচেতন সমাজ উন্নয়ন সংস্থা’র সভাপতি মোঃ মনিরুজ্জামান মনির বলেন, লালমনিরহাট জেলার মানুষ দীর্ঘদিন থেকে অবহেলিত ও বঞ্চিত হয়ে আসছে। দীর্ঘদিন থেকে বঞ্চনার শিকার। গত ১৫ বছরের আমরা যদি বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের হিসাব ধরি, মেগা প্রকল্পের হিসাব ধরি, একনেকে গত ১৫ বছরে যত প্রকল্প পাস হয়েছে তা যদি জেলা ভিত্তিক বণ্টন করা হয়, দেখা যাবে সবচেয়ে অবহেলিত, অধিকার বঞ্চিত উত্তরাঞ্চলের মধ্যে লালমনিরহাট জেলা।
এই জেলার সাধারণ মানুষ সামাজিক ও অর্থনৈতিক ভাবে বঞ্চনার শিকার। তার অন্যতম কারণ হলো লালমনিরহাট জেলার জনপ্রতিনিধিদের মাঝে ঐক্যের অভাব। সাধারণ মানুষের সামাজিক ও অর্থনৈতিক এবং এলাকার উন্নয়নে একসাথে কাজ করতে চেষ্টা করেন না। নিজের ও পরিবারের সদস্য এবং দলীয় নেতা-কর্মীদের ভাগ্য উন্নয়নের প্রতিযোগিতায় সময় পার করেন মাত্র। আর সেই কারণেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতির তিনবিঘা আন্তঃনগর ট্রেন লালমনিরহাট জেলার বুড়িমারী থেকে ঢাকা চলাচলের এক যুগ পার হয়ে গেলেও আলোর মুখ দেখতে পায়নি। পায়নি এবার ঈদ স্পেশাল ট্রেনও।

এবারের ঈদে ট্রেন যাত্রা থেকে অধিকার বঞ্চিত হবে লালমনিরহাট, রংপুর, কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, বগুড়া এলাকার হাজার হাজার মানুষজন।

মনিরুজ্জামান মনির আরও বলেন, লালমনিরহাট রংপুর, কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, বগুড়া রুটে ঈদ স্পেশাল ট্রেন না থাকার বিষয়টি খুবই দুঃখ জনক। কারণ এই অঞ্চলের অবহেলিত লোকজন চাকুরীর সুবাদে ঢাকায় থাকেন। এই সুযোগটা যদি তাঁরা না পায় তাহলে এলাকার জনপ্রতিনিধি এবং লালমনিরহাট রেল বিভাগের রেলওয়ের কর্তৃপক্ষ ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন। ঈদ স্পেশাল ট্রেনের ব্যবস্থা করা না হলে বৈষম্য সৃষ্টি করা হচ্ছে। এ অঞ্চলের জন্য অবশ্যই বিশেষ ট্রেন দেয়া উচিত। যদি ট্রেন না দেয়া হয় তাহলে সাধারণ মানুষের সঙ্গে বৈষম্য করা হবে। লালমনিরহাট জেলার জনপ্রতিনিধিদের জনগণের প্রতি দায়বদ্ধতার অভাব আজ পরিস্কারভাবে ফুটে উঠেছে। তারা ঈদ স্পেশাল ট্রেনের জন্য রেলওয়ে কতৃপক্ষকে চাপ দিতে পারেনি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুত তিনবিঘা আন্তঃনগর ট্রেন চালু হওয়া সময়ে দাবিতে পরিনত হয়েছে।

এ জেলার জনপ্রতিনিধিদের এবং সাধারণ মানুষকে দেশের অন্যান্য অঞ্চলের জনপ্রতিনিধি এবং মানুষের কাছ থেকে শিক্ষা গ্রহণ করা উচিত। লালমনিরহাট রেলওয়ে বিভাগ হলেও অবহেলিত। এই এলাকার মানুষের সাথে অন্যায় করা হচ্ছে।

লালমনিরহাট রেল বিভাগীয় ম্যানেজার মোহাম্মদ আবদুস সালাম এ বিষয়ে বলেন, ঈদ স্পেশাল ট্রেনের জন্য এখনো সব কিছু চুড়ান্ত হয়নি, মিটিং চলমান আছে। উপরন্তু কর্মকর্তারা যাহা সিদ্ধান্ত নিবেন সেটাই আমাদের মেনে নিতে হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন